কোথায় সরকারি এ্যাম্বুলেন্স সেবা!

পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালের ব্যবহৃত এ্যাম্বুলেন্স | ছবি- এনএনবি বাংলা

অভিজিৎ শান্ত : হাসপাতালের অন্যান্য সংকটগুলো মেনে নিলেও জরুরি মুহূর্তে সরকারি এ্যাম্বুলেন্স সেবাটি না পেয়ে দীর্ঘদিন ধরে তীব্র ক্ষোভ ঝেড়ে আসছেন ভুক্তভোগী মহল।

স্বাস্থ্য সেবাদানকারী সরকারি প্রতিষ্ঠানটির নাম নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল। এখানে এখনো প্রতিনিয়ত এমন অভিযোগ পাওয়া যায়, রোগী নিয়ে গেলেই বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতাল।

হোক তা বুকে ব্যথা বা এক্সিডেন্টের কোনো রোগী। আর তা যদি কোনো গর্ভবতী মা’র ডেলিভারির বিষয় হয় তবে সেক্ষেত্রে তো কোনো কথাই নেই। তখন সংশ্লিষ্টরা যেন যত তাড়াতাড়ি পারেন বিদায় করতে পারলে হাফ ছেড়ে বাঁচেন!

আর কঠিন সেই মুহূর্তে একজন রোগীর স্বজনের দ্রুত প্রয়োজন হয় এ্যাম্বুলেন্স সাপোর্ট। কিন্তু বলা হচ্ছে ১০০ শয্যার হাসপাতালটিতে রয়েছে একটি মিনি এ্যাম্বুলেন্স! যদিও হাসপাতাল চত্বরে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে আরো চারটি এ্যাম্বুলেন্স।

লতাপাতায় জড়িয়ে ফেলেছে পড়ে থাকা এ্যাম্বুলেন্স | ছবি- এনএনবি বাংলা

মিনি যে এ্যাম্বুলেন্সটিকে সচল বলা হচ্ছে সেটি থেকেও পাওয়া যাচ্ছে না কাঙ্ক্ষিত সেবা। কেন না একটি এ্যাম্বুলেন্স দিয়ে কখনোই সম্ভব না জেলা শহরের একটি হাসপাতালের রোগীদের সেবা প্রদান।

তখনই বিপাকে পড়ছেন সেবাগ্রহীতারা। কঠিন সময়ের সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাদের। সরকারি এ্যাম্বুলেন্স না থাকায় হাসপাতাল গেটে দাঁড়িয়ে থাকা এ্যাম্বুলেন্স চালকরা রোগীর স্বজনদের জিম্মি করে গলাকাটা ভাড়া আদায় করে।

দূর থেকে হাসপাতালে আসা রোগী ছাড়াও জেলা শহরের স্থানীয় একাধিক বাসিন্দার সাথে কথা বলে জানতে চাইলে তারাও এসব অভিযোগের সাথে একমত জানান।

তবে বিষয়টি নিয়ে হাসপাতাল সূত্র বলছে, নতুন এ্যাম্বুলেন্স বরাদ্দ না হলে তো দায়িত্বরতদের কিছু করার নেই। তবে বরাদ্দ হলে সংকট কেটে যাবে। সরকারি এ্যাম্বুলেন্স থেকে কাঙ্ক্ষিত সেবা ভোগ করতে পারবে জেলাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *